Header

মাথা ব্যাথা দুর করার সহজ ও কার্যকরী সমাধান কি? মাথা ব্যাথা দুর করব যে ভাবে

মাথা থাকলে মাথার ব্যথা থাকবেই। তাই বলে কি যখন তখন মাথা ব্যথা হবে তা কি হয়। যাদের মাথা ব্যথা নিয়মিত করে তারা অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ঔষধ গ্রহণ করেন। ঔষধে কখনো কাজ হয় কখনো হয় না। মাথা ব্যথা বিভিন্ন কারনে হতে পারে। তার মধ্যে দু একটা কারন আপনাদের মাঝে তুলে ধরলাম।
 ১) চোখের সমস্যা
২) ঠান্ডা লাগা
৩) অতিরিক্ত গরম
৪) পানি শূন্যতা
৫) এসিডিটির কারনে পেটে গ্যাস বা বায়ু জমে যাওয়া চোখের সম্যার কাননে আমাদের অনেকের মাথা ব্যাথা হয়ে থাকে।
আমরা প্রচলিত ঔষধ বুঝে না বুঝে গ্রহণ করে থাকি। আমাদের মধ্যে একটা চল আছে যদি কখনো আমাদের মাথা ব্যথা হয় তখন আমরা প্যারাসিটামল বা ক্যাফেইন মিশ্রত ঔষধ গ্রহণ করি। এত আমরা সাময়িক ফল পেলেও আমাদের সমস্যা কিন্তু রিমুভ হয় না।
আপনার যদি দৃষ্টি গত কোন সমস্যা হয়। যেমন কোন বস্তু কাছ থেকে দেখতে অসুবিধা বা দুরের বস্তু দেখতে অসুবিধা তাহলে বুঝতে হবে আপনার চোখের সমস্যা হয়েছে। এর জন্য আপনার মাথা ব্যথা হতে পারে তাই চোখের ডাক্তারের কাছে আপনার যাওয়া উচিত।
 আবার অনেক সময় আবহাওয়ার কারনে ঠান্ডা লাগে কিংবা গরম থেকে এসে আইসক্রিম বা কমল পানি ফ্রিজ থেকে আমরা গ্রহণ করি এতে মাথা ব্যথার সৃষ্টি হতে পারে। সাখে জ্বরও থাকতে পারে। এমনটি হলেও মাথা ব্যথা হতে পারে। এর জন্য প্লেন প্যারাসিটামল গ্রহণ করা যেতে পারে। যদি প্যারাসিটামল গ্রহণ করেও আপনার মাথা ব্যথা না যায় তাহলে দেরি না করি আপনার নিকটস্থ সরকারী হাসপাতালে যোগাযোগ করুন বা কমিউনিটি ক্লিনিকে যান। কারন সরকার জনগনের জন্য স্বাস্থ্য সেবা রেখেছেন। যা থেকে আমরা সমাধান পেতে পারি।
 আামাদের মাথা ব্যথা সবচেয়ে যে কারনে বেশী হয়ে থাকে তা হলো গ্যাসের সমস্যার কারনে। আপনার মাথা ব্যথা করছে প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন। দেখবেন মাথা ব্যথা কমে গেছে। কিংবা একটা গ্যাসের ট্যাবলেট গ্রহণ করুন। দেখবেন মাথা ব্যথা উধাও।
ভাজ পোড়া খাবার কারনে বা অনেক ক্ষন না খেয়ে থাকার কারনে মাথা ব্যথার সৃষ্টি হয়েছে। একটা গ্যাসের ট্যাবলেট এই সমস্যা থেকে আপনাকে দ্রুত নিস্তার দেবে। আপনি গ্যাসের ট্যাবলেট কোন টা খাবেন। তা আপনার শারীরিক কন্ডিশনের উপর নির্ভর করবে।
 এর জন্য ডাক্তারের পরামর্শ নিন। আপনার যদি পায়খান নিয়মিত না হয় তাহলে আপনি ওমিপ্রাজল গ্রহন করতে পারেন। আর যদি আপনার বুক জ্বালা পোড়া থাকে তাহলে ইসোমপ্রাজল 20 গ্রহণ করতে পারেন।
 সবচেয়ে বড় কথা কোন ঔষধ প্রহন করার আগে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

No comments

Powered by Blogger.