Youtube- Video----------Lovely Girl Naba

>
Home / Make Dollars / গুগল এডসেন্স পাবার নিয়ম। Google Adsense Rules

গুগল এডসেন্স পাবার নিয়ম। Google Adsense Rules

গুগল এডসেন্স পাবার নিয়ম। Google Adsense Rules

 

বাংলায় এডসেন্স পাবার নিয়ম, বাংলায় এডসেন্স

গুগল এডসেন্স পাবার নিয়ম। Google Adsense Rules বন্ধুরা আমি অনলাইন জগতে অনেকদিন ধরে আছি। তাই অভিজ্ঞতা কম হলো না। তাই আজকের এই পোস্ট অভিজ্ঞতার আলোকেই বলছি। আমি যতটুকু জানি আপনাদের সাথে ততটুকুই আলোচনা করবো।

যা জানি না বা বুঝি না তা আলোচনা করবো না। আপনাদের যদি কারও কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করুন।

Friends I have been in the online world for a long time. So the experience is not low. So today’s post in the light of experience. I will talk to you as much as I know.

I will not talk about what I do not know or understand. If you have any questions, please comment.

 

আমাদের ফেসবুক লাইক পেজ ও গ্রুপে যোগ দিন। এখানে ক্লিক করুন

 

অনেকেই মনে করেন গুগল এডসেন্স সোনার হরিন। আমি বলবো সোনা রুপা কিছুই না শুধুই এডসেন্স। এডসেন্স পাওয়া না পাওয়া নিয়ে বহু ব্লগ আর্টিকেল পড়েছি। আমি জানি আপনারাও পড়তে পড়তে ক্লান্ত হয়ে গেছেন। সো আর দেরী নয়-

Many people think Google Adsense gold deer. I say gold silver is nothing but adsense I have read many blog articles about not getting Adsense. I know you’re tired of reading too. Not too late

আমার মতে নিচের নিয়ম ফলো করলে আপনি অবশ্যই অবশ্যই এডসেন্স পাবেন। কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই। আমি বেশী কথা বলতে পারিনা। হকারী করা আমার সভাব নয়।

In my opinion, following the rules below, you must definitely get Adsense. Without any hassle. I can not speak too much. It’s not my gesture.

১) আপনি ইউনিক লেখা লিখেন। যাই লিখবেন কোন প্রকার কপি পেস্টের কাছে যাবেন না। আপনি এমন লিখা লিখেন যা পৃথিবীর অন্যকারও সাথে মিলে না যায়। এক কথায় অন্যের লেখা কপি করবেন না। অন্যের লেখা দেখে ধারনা নিতে পারেন। ধরুন কেউ সাইকেল নিয়ে আর্টিকেল লিখেছে, আপনিও লিখুন কিন্তু ও যে কথা গুলো লিখেছে তা আপনার মতো করে লিখুন। বুঝতে অসুবিধা হলে আমার এই লেখাটা দেখতে পারেন—ইউনিক কনটেন্ট কি ভাবে লিখতে হয়।

1) You write unique writing. Whatever type of copy paste you will not go to. You write that which does not match with anyone else in the world. Do not copy the text of others in one word. You can take ideas by writing to others. Suppose someone wrote articles on a bicycle, you write but write and write the words that you like. If you have difficulty understanding, you can see my writing- how to write unique content.

২)যাই লিখবেন তা মিমিমাম ৩০০ ওয়ার্ড। সর্ব্বোচ্য ১৫০০ ওয়ার্ড এর ভিতর লিখুন। এটা স্ট্যার্ন্ড। অনেকেই বলতে পারেন ৫০০০ ওয়ার্ড পর্য্যন্ত নাকি লিখা যায়। আমি আমার মতো করে বলছি। কারন ১৫০০ শব্দে স্ট্যান্ডার্ড বজায় থাকে।

2) Whatever you write, it’s 300 mm wide. Enter the maximum of 1500 wards. It’s sterend. Many can say that they can write up to 5000 wards. I’m telling me like that. Because the standard remains in 1500 words.

৩)আপনারা জানেন যে এখন বাংলাতেও গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়। তাই আর্টিকেল লিখা কিন্তু কোন ব্যপার না। যাই হোক না কেন গল্প, কবিতা, ভ্রমণ কাহিনী যাই হোক। লিখা হলেই হলো। শুধু শর্ত একটাই। ইউনিক।

3) You know that Google Adsense is now available in Bangla. So write the article but do not worry. Whatever the stories, poems, travel stories, whatever. It is only after writing. The only condition is one. Unique



৪) প্রথম অবস্থায় প্রতিদিন একটা বা দুইটা করে পোস্ট করুন। না করলেও ক্ষতি নাই আবার বেশী করলেও ক্ষতি নাই। সপ্তাহে একটা বা মাসে একটা পোস্ট করলেও হবে। কিন্তু গুগল একটা বিষয় খুব লক্ষরাখে যে কাজের ধারাবাহিকতা। গুগল বুঝতে চায়যে তারা যে আপনার সাথে ব্যবসায়িক অংশিদার হবে তাতে প্রফিট কি হবে।

4) Post a day or two daily in the first position. If you do not have harm, you do not have any harm. There will be one post in a month or a month. But the continuity of the work that Google is doing in a lot of things. Google wants to understand what the profits will be in the business partner with you.

৫) পোস্টের সংখ্যা ১৫ থেকে ২০ হয়ে গেলে আপনি এডসেন্সএর জন্য আবেদন করুন। আর একটা কথা। পোস্টে যে পিকচার গুলো ব্যবহার করবেন তাও কিন্তু কপিরাইট মুক্ত হতে হবে। এখন প্রশ্ন থাকে ভাই তাহলে তো পিকচার পাওয়ায় মশকিল। না একেবারেই মশকিল নয়। পিকচার ইউনিক বানানোর কৌশল। যদি না যেনে থাকেন তাহরে এই লিখা দেখতে পারেন।

5) If the number of posts is 15 to 20, then apply for Adsense. And one more thing. The pictures that you use in the post will also be copyright-free. Now the question is, if the brother is still getting a picture, then the problem. It’s not completely rusty. Picture making technique unique If you do not know, you can see this writing.

৬) এসইও ট্যাগ, টাইটেল, ডিসক্রিপশন লিখতে হবে। যারা এরকবারেই নতুন তারা আমারে এই পোস্ট দেখতে পারেন। এসইও ট্যাগ, টাইটেল, ডিসক্রিপশন লেখার নিয়ম।

 6) Write SEO tags, titles, discriptions. Those who are new to me can see this post. SEO tags, titles, rules for writing discriptions

হয়ে গেন সব। খুব কি কঠিন? একেবারে পানির মতো সোজা তাই না।

 It all happened. What is so difficult? Not exactly like the water.

এতকিছুর পর কিন্তু একটা কথা থেকে যায়। যারা উপরের সব নিয়ম মেনেছেন তারপরও সফল হচ্ছেন না তারা আপনার সাইটে এই কাজ করেছেন কি?

 

যেমন- গুগলে সাইট সাবমিট।

সাইট ম্যাপ তৈরী।

রোবট টেক্স বসানো।

রোবট টেক্স কিন্তু অনেক প্রকার যা আপনার সাইটের জন্য খুবই জরুরী। অনেকেই আছেন সব নিয়ম কানুন ঠিক রেখেছেন কিন্তু ইনডেক্স রোবট ব্যবহার করেন নাই। দিনের পর দিন চেস্টা করেই যাচ্ছেন সফলতা নেই।

 

যারা এসব কিছু করেন নাই বা জানেন না তারা আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

বন্ধুরা আজ এ খানেই শেষ করছি। নতুন কোন পোস্টে আবার দেখা হবে।

After all but one thing remains. Those who adhere to the above rules are still not successful, have they done this on your site?

For example, Google site submissions.

Site Map Ready

Robot Tex placement

Robot Tex But there are many types which are very important for your site. Many have kept all the rules well but did not use index robots. Trying day after day is not a success.

Those who do not know or do not know they can contact me.

About Rajib

Leave a Reply